নিজের গেইম নিজেই তৈরি করছে ওয়াসিক ফারহান রুপকথা | Youngest programmer of...

বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ প্রোগ্রামার বাংলাদেশের রূপকথা।

ওয়াসিক ফারহান রূপকথা৷(Wasik Farhan Roopkotha) বয়স এখন ১৩ বছর। আর কদিন পরই তার নাম উঠতে যাচ্ছে গিনিজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস-এ৷ কারণ সে বিশ্বের সবচেয়ে কনিষ্ঠ তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ৷ ‘রিপলি-স বিলিভ ইট অর নট’ যে খেতাব ইতিমধ্যেই তাকে দিয়ে দিয়েছে৷

এক বছর বয়স  থেকে কম্পিউটারে গেম খেলা(6 year youngest computer gamer), দুই বছর বয়সে এমএস ওয়ার্ডে লেখা ও গেম ডাউনলোড করে ইনস্টল করা, চার বছর বয়সে এমুলিউটর দিয়ে গেমসের বিভিন্ন চরিত্রে পরিবর্তন আনা, ছয় বছর বয়সে প্রোগ্রামিং – এভাবে একের পর এক বিস্ময়ের জন্ম দিয়েছে রূপকথা৷

এরই মধ্যে শেখা হয়ে গেছে (Visual Basic, C, C++, Java, Python)ভিজ্যুয়াল বেসিক, সি, সি++, জাভা, পাইথন এসব প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ৷ অপারেটিং সিস্টেম সেটআপ দেয়া আর ট্রাবলশ্যুটিং তো কোনো ব্যাপারই নয় তার কাছে৷

এসব দেখেশুনে ‘রিপলি-স বিলিভ ইট অর নট' গত বছর রূপকথা(Wasik Farhan Roopkotha)কে বিশ্বের সবচেয়ে কনিষ্ঠ কম্পিউটারে প্রোগ্রামারের খেতাব দেয়৷ এছাড়া এই সেপ্টেম্বরে রিপলির যে রেকর্ড বই বের হবে তাতে রূপকথার নাম থাকবে বলে তার বাবা-মাকে জানিয়েছে রিপলি কর্তৃপক্ষ৷

রূপকথার সঙ্গে এসব বিষয় নিয়ে কথা বলতে টেলিফোন করা হলে কথা হয় তার মা সিন্থিয়া ফারহিন রিশার সঙ্গে৷ তিনি জানান, রূপকথা নাকি ফোনে খুব একটা কথাবার্তা বলে না৷

অগত্যা মা রিশার কাছ থেকেই এই বিস্ময় বালকের কাহিনি জেনে নিতে হয়৷ তিনি বলেন কম্পিউটারের প্রতি রূপকথার আগ্রহ জন্মের কিছুদিন পর থেকেই৷ তখন সে স্ক্রিনের দিকে অপলক তাকিয়ে থাকতো৷ সেসময় কম্পিউটার চালু না করলে তাকে খাওয়ানোই যেত না৷ ‘‘এক বছর বয়স থেকেই সে এমন সব জটিল গেম খেলতো যা সাধারণত আরও বড় বয়সের শিশুরা খেলে,'' বলেন রিশা৷

এছাড়া ইতিমধ্যে গিনিজের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করার কথা জানান তিনি৷ ‘‘নিয়ম অনুসারে রূপকথার নাম গিনিজে অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে চুক্তিটা সই হয়েছে৷ ঢাকার ঐ অনুষ্ঠানের পরই চুক্তিটা হয়েছে৷''

রূপকথা(Wasik Farhan Roopkotha) এরই মধ্যে শিখে ফেলেছে ভিজ্যুয়াল বেসিক, সি, সি++, জাভা, পাইথন
রূপকথার ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে মা রিশা বলেন, ‘‘সে নিজের একটা অপারেটিং সিস্টেম ডেভেলপ করতে চায়৷ এখন সে উইন্ডোজের সব অপারেটিং সিস্টেম নিয়ে গবেষণা করছে৷ আগের সংস্করণগুলোতে কী কী ফিচার ছিল না, এখন নতুন কী যোগ হয়েছে, সব তার নখদর্পণে৷''

রূপকথা স্কুলে না গেলেও অষ্টম শ্রেণির ইংরেজি পাঠ্যপুস্তকে তার এই বিস্ময় কাহিনি ইতিমধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে৷

 

No comments

Powered by Blogger.